Skip to main content

Five Pillars of Islam

Five Pillars of Islam  The profession of Faith (Shahadah)  Prayer (Salah) Alms (Zakat) Fasting (Sawm) Pilgrimage (Hajj) What are The  Five Pillars of Islam Explained 5 pillars of Islam in English? 5 Pillars of Islam  Prophet Muhammad Sallallahu Alayhi Wa Sallam came to teach us many things and the most important of them are the five pillars of Islam do you know the five pillars let's say them together with number one a Shahada to say  ASH-HADU ANNA LA ILAHA ILLA ALLAHU WA ASH-HADU ANNA MUHAMMADAN ABDUHU WA RASULUHU which means there is no one worthy of worship except Allah and that Muhammad Sallallahu Alayhi Wa Sallam is his final messenger number two is salat the prayer the five daily prayers number three zakat to give the yearly charity number four ECM fast in the month of Ramadan and number five is Hajj going to Mecca and performing the pilgrimage Salah will be the first pillar that Allah will ask us about on the day of judgment so it is very important to pray on time and concen

আল্লাহর 99 নাম বাংলাই আসমাউল হুসনা | Allah 99 names Bangla

99 names of Allah Allah 99 names Bangla আসমাউল হুসনা আল্লাহর 99 নাম বাংলাই


আল্লাহর ৯৯ নাম বাংলা অর্থ সহ ফজিলত  সহ ইসলামিক সব গরুত্ব পর্ণ দুআ ও আমল সমূহ, এবং নবীদের জীবনী, ইসলামিক যুদ্ধের কাহিনী, জানতে আমাদের আপ্প ডাউনলোড করুন


Allah 99 names Bangla: আসমাউল হুসনা আল্লা আর 99 নাম বাংলাই


অন্ধকারের জন্য কখনই স্থির হবেননা। সর্বদা আলোর সন্ধান করুন আল্লাহর ৯৯ নামের মাজে পাবেন সেই আলো যা আর কোথাও পাবেননা

ফজিলত ফজিলত ( পবিত্র হাদীস শরীফে রাসূলে আকরাম সাল্লাল্লাহু আলাইহে ওয়াসাল্লাস বলেছেন , “ সকল প্রকার যিকির হতে আল্লাহ পাকের নামের যিকির সর্বোত্তম । হযরত আবু হােরায়রা ( রা :) বলেন , নবী করিম ( সাঃ ) এরশাদ করেছেন আল্লাহ তালার ৯৯ টি নাম রয়েছে , যে সেগুলাে মুখস্থ করবে সে বেহেস্তে প্রবেশ করবে ।

 ( ১ ) আল্লাহ নামটি হচ্ছে ইসমে আযম এবং আল্লাহর সকল সুন্দরতম নামের সমষ্টি । যদি কেউ এই নামে তাকে স্মরণ করে তাহলে তাকে সকল সুন্দর নামে স্মরণ করার মতাে সওয়াবের অধিকারী হবে । আল্লাহর তৌহিদের সাক্ষ্য দানের জন্য এই নামটিই উপযুক্ত । তাই এই নামটি আল্লাহর সকল নামের মধ্যে বেশী প্রাধান্যতা রাখে এবং পবিত্র কোরআন শরীফে উক্ত নামটির ব্যবহার সবচেয়ে বেশী এবং তার সংখ্যা ২৮০৭ বার বলে উল্লেখ করা হয়েছে । 

( ২ ) বিভিন্ন নির্ভরযােগ্য রেওয়ায়েত থেকে বর্ণিত হয়েছে যে , যদি কেউ অন্তর থেকে ১০ বার ইয়া আল্লাহ বলে তাহলে তার দোয়া বা আবেদন বিফলে যাবে না। 

( ৩ ) যে ব্যক্তি রােজ এক হাজার বার ‘ ইয়া আল্লাহ ! পাঠ করবে , ইনশাআল্লাহ তার মন থেকে যাবতীয় সন্দেহ ও দ্বিধা দূরীভূত হয়ে যাবে এবং সে একীন ও দৃঢ়তা অর্জন করতে পারবে । কোন দূরারােগ্য রােগী যদি অত্যাধিক পরিমাণে ‘ ইয়া আল্লাহ নিয়মিত পড়তে থাকে এবং পরে আরােগ্যের জন্য দোয়া করে , তা হলে সে আরােগ্য লাভ করবে ।

()-আল্লাহ -( )

( নম্বর ) ( আরবিক নাম )  ( নাম )          ( অনুবাদ )

নম্বর      (1) ٱلْرَّحْمَـانُ   আর রাহমান – পরম দয়ালু

নম্বর     (২) ٱلْرَّحِيْمُ        আর রহিম – অতিশয় মেহেরবান

নম্বর    (3) ٱلْمَلِكُ আল মালিক – সর্বকর্তৃত্বময়

নম্বর    (4) ٱلْقُدُّوسُ       আল কুদ্দুস – অতি পবিত্র

নম্বর   (5) ٱلْسَّلَامُ আস সালাম – শান্তি দানকারী

নম্বর   (6) ٱلْمُؤْمِنُ       আল মুমিন – নিরাপত্তা ও ঈমান দানকারী

নম্বর  (7) ٱلْمُهَيْمِنُ আল মুহাইমিন – পরিপূর্ণ রক্ষণাবেক্ষণকারী

নম্বর (8)  ٱلْعَزِيزُ আল আজিজ – পরাক্রমশালী

নম্বর (9) ٱلْجَبَّارُ      আল জাব্বার – দুর্নিবার

নম্বর (10) ٱلْمُتَكَبِّرُ   আল মুতাকাব্বির – নিরঙ্কুশ শ্রেষ্ঠত্বের অধিকারী


নম্বর (11) ٱلْخَالِقُ আল খালিক – সৃষ্টিকর্তা

নম্বর (12)  ٱلْبَارِئُ   আল বারী – সঠিকভাবে সৃষ্টিকারী

নম্বর (13) ٱلْمُصَوِّرُ  আল মুসাউইর – আকৃতি দানকারী

নম্বর (14) ٱلْغَفَّارُ     আল গাফ্ফার – পরম ক্ষমাশীল

নম্বর (15) ٱلْقَهَّارُ     আল ক্বাহার – কঠোর

নম্বর (16) لْوَهَّابُ   আল ওয়াহ্হাব – সবকিছু দানকারী

নম্বর (17) لْرَّزَّاقُ   আর রাজ্জাক – রিযিকদাতা

নম্বর (18) ٱلْفَتَّاحُ    আল ফাত্তাহ – বিজয়দানকারী

নম্বর (19)  ٱلْعَلِيمُ আল আলীম – সর্বজ্ঞ

নম্বর (20) ٱلْقَابِضُ আল কাবিদ্ব – সংকীর্ণকারী


নম্বর (21) ٱلْبَاسِطُ   আল বাসিত – প্রশস্তকারী

নম্বর (22) ٱلْخَافِضُ  আল খাফিদ – অবনতকারী

নম্বর (23) ٱلْرَّافِعُ     আর রাফী – উন্নতকারী

নম্বর (24) ٱلْمُعِزُّ     আল মুজিব – সম্মান দানকারী

নম্বর (25) ٱلْمُذِلُّ    আল মুদ্বিল্ল – (অবিশ্বাসীদের) বেইজ্জতকারী

নম্বর (26) ٱلْسَّمِيعُ   আস সামি – সর্বশ্রোতা

নম্বর (27) ٱلْبَصِيرُ   আল বাসীর – সর্ববিষয় দর্শনকারী

নম্বর (28) ٱلْحَكَمُ     আল হাকাম – অতল বিচারক

নম্বর (29) ٱلْعَدْلُ আল আদল – পরিপূর্ণ ন্যায়বিচারক

নম্বর (30) ٱلْلَّطِيفُ   আল লতিফ – সকল গোপন বিষয়ে অবগত


নম্বর (31) ٱلْخَبِيرُ আল খাবির – সকল বিষয়ে জ্ঞাত

নম্বর (32) ٱلْحَلِيمُ আল হালিম – অত্যন্ত ধর্য্যশীল

নম্বর (33) ٱلْعَظِيمُ  আল আজিম – সর্বত্ত মর্যাদাশীল

নম্বর (34) ٱلْغَفُورُ  আল গফুর – পরম ক্ষমাশীল

নম্বর (35) ٱلْشَّكُورُ  আস শাকুর – গুন্গ্রাহী

নম্বর (36) ٱلْعَلِيُّ    আল আলী – উচ্চ মর্যাদাশীল

নম্বর (37) ٱلْكَبِيرُ   আল কাবিইর – সুমহান

নম্বর (38) ٱلْحَفِيظُ  আল হাফীজ – সংরক্ষণকারী

নম্বর (39) ٱلْمُقِيتُ আল মুক্বিত – সকলের জীবনোপকরণ দানকারী

নম্বর (40)  ٱلْحَسِيبُ আল হাসিব – হিসাব গ্রহণকারী


নম্বর (41) ٱلْجَلِيلُ  আল জলীল- পরম মর্যাদার অধিকারী

নম্বর (42) ٱلْكَرِيمُ আল কারীম – সুমহান দাতা

নম্বর (43) ٱلْرَّقِيبُ  আল রাক্বীব – তত্ত্বাবধায়ক

নম্বর (44) ٱلْمُجِيبُ  আল মুজীব – কবুলকারী

নম্বর (45) ٱلْوَاسِعُ  আল ওয়াসি – সর্বত্ত বিরাজমান

নম্বর (46) ٱلْحَكِيمُ আল হাকীম – পরম প্রজ্ঞাময়

নম্বর (47) ٱلْوَدُودُ  আল ওয়াদুদ – (বান্দাদের প্রতি) সদয়

নম্বর (48) ٱلْمَجِيدُ আল মাজীদ – সকল মর্যাদার অধিকারী

নম্বর (49) ٱلْبَاعِثُ  আল বাইস – পুনরুজ্জীবিতকারী

নম্বর (50)  ٱلْشَّهِيدُ   আশ শাহীদ – সর্বজ্ঞ স্বাক্ষী


নম্বর (51)  ٱلْحَقُّ আল হাক্ব – পরম সত্য

নম্বর (52) ٱلْوَكِيلُ আল ওয়াকিল – পরম নির্ভরযোগ্য কর্ম-সম্পাদনকারী

নম্বর (53) ٱلْقَوِيُّ আল ক্বাউইউ – পরম শক্তির অধিকারী

নম্বর (54) ٱلْمَتِينُ  আল মাতীন – সুদৃঢ়

নম্বর (55) ٱلْوَلِيُّ  আল ওয়ালীইউ – অভিভাবক ও সাহায্যকারী

নম্বর (56) ٱلْحَمِيدُ  আল হামীদ – সকল প্রশংসার অধিকারী

নম্বর (57) ٱلْمُحْصِيُ  আল মুহসি – সকল সৃষ্টির ব্যাপারে অবগত

নম্বর (58) ٱلْمُبْدِئُ আল মুব্দি – প্রথমবার সৃষ্টিকর্তা

নম্বর (59) ٱلْمُعِيدُ   আল মুঈদ – পুনরায় সৃষ্টিকর্তা

নম্বর (60) ٱلْمُحْيِى আল মুহয়ি – জীবন দানকারী


নম্বর (61) ٱلْمُمِيتُ   আল মুমীত – মৃত্যু দানকারী

নম্বর (62) ٱلْحَىُّ     আল হাইয়্যু – চিরঞ্জীব

নম্বর (63) ٱلْقَيُّومُ    আল ক্বাইয়ূম – সমস্ত কিছুর ধারক ও সংরক্ষণকারী

নম্বর (64) ٱلْوَاجِدُ   আল ওয়াজীদ – অফুরন্ত ভান্ডারের অধিকারী

নম্বর (65) ٱلْمَاجِدُ  আল মাজীদ – শ্রেষ্ঠত্বের অধিকারী

নম্বর (66) ٱلْوَاحِدُ  আল ওয়া’হিদ – এক ও অদ্বিতীয়

নম্বর (67) ٱلْأَحَد  আল আহাদ – এক

নম্বর (68) ٱلْصَّمَدُ  আস সামাদ – অমুখাপেক্ষি

নম্বর (69) ٱلْقَادِرُ  আল ক্বাদীর – সর্বশক্তিমান

নম্বর (70) ٱلْمُقْتَدِرُ  আল মুক্তাদির – নিরঙ্কুশ সিদ্ধান্তের অধিকারী


নম্বর (71) ٱلْمُقَدِّمُ   আল মুক্বদ্দিম – অগ্রসারক

নম্বর (72) ٱلْمُؤَخِّرُ  আল মুয়াক্ষীর – অবকাশ দানকারী

নম্বর (73)  ٱلأَوَّلُ আল আউয়াল – অনাদি

নম্বর (74) ٱلْآخِرُ   আল আখির – অনন্ত, সর্বশেষ

নম্বর (75) ٱلْظَّاهِرُ  আল জাহির – সম্পূর্ণরূপে প্রকাশিত

নম্বর (76) ٱلْبَاطِن   আল বাত্বিন – দৃষ্টি হতে অদৃশ্য

নম্বর (77) ٱلْوَالِي আল ওয়ালী – সমস্ত কিছুর অভিভাবক

নম্বর (78) ٱلْمُتَعَالِي  আল মুতা’আলী – সৃষ্টির গুণাবলীর উর্দ্ধে

নম্বর (79) ٱلْبَرُّ  আল বার্ – পরম উপকারী

নম্বর (80) ٱلْتَّوَّابُ  আত তাওয়াব – তাওবার তৌফিক দানকারী ও কবুলকারী


নম্বর (81) ٱلْمُنْتَقِمُ   আল মুনতাক্বীম – প্রতিশোধ গ্রহণকারী

নম্বর (82) ٱلْعَفُوُّ     আল আফঊ – পরম উদার

নম্বর (83) ٱلْرَّؤُفُ আর রউফ – পরম স্নেহশীল

নম্বর (84) مَالِكُ ٱلْمُلْكُ মালিকুল মূলক – সমগ্র জগতের বাদশাহ

নম্বর (85) ذُو ٱلْجَلَالِ وَٱلْإِكْرَامُ   যুল জালালী ওয়াল ইকরাম – মহিমান্বিত ও দয়াবান সত্তা

নম্বর (86) ٱلْمُقْسِطُ আল মুক্বসিত – হকদারের হোক আদায়কারী

নম্বর (87) ٱلْجَامِعُ আল জামিই – একত্রকারী, সমবেতকারী

নম্বর (88) ٱلْغَنيُّ   আল গানি – অমুখাপেক্ষি ধনী

নম্বর (89) ٱلْمُغْنِيُّ আল মুগনিই – পরম অভাবমোচনকারী

নম্বর (90) ٱلْمَانِعُ   আল মানিই – অকল্যাণরোধক


নম্বর (91) ٱلْضَّارُ  আয্ যর – ক্ষতিসাধনকারী

নম্বর (92)  ٱلْنَّافِعُ আন নাফিই’ – কল্যাণকারী

নম্বর (93) ٱلْنُّورُ আন নূর – পরম আলো

নম্বর (94) ٱلْهَادِي  আল হাদী – পথ প্রদর্শক

নম্বর (95) ٱلْبَدِيعُ  আল বাদীই – অতুলনীয়

নম্বর (96) ٱلْبَاقِي আল বাক্বী – চিরস্থায়ী, অবিনশ্বর

নম্বর (97) لْوَارِثُ  আল ওয়ারিস – উত্তরাধিকারী

নম্বর (98) ٱلْرَّشِيدُ  আর রাশীদ – সঠিক পথ প্রদর্শক

নম্বর (99) ٱلْصَّبُورُ আস সাবুর – অত্যাধিক ধর্য্য ধারণকারী


আল্লাহর ৯৯ নাম বাংলা অর্থ সহ  ও ফজিলত সহ আলোচনা  দেখার জন্য এখানে ক্লিক করুন 


  • 99 names of Allah in Bangla
  • 99 names of Allah with meaning and benefits in Bangla
  • 99 names of Allah in Arabic and Bangla
  • Allah name with Bengali text

Comments

  1. আলহামদুলিল্লাহ খুব সুন্দর হয়েছে।

    ReplyDelete

Post a Comment

Please do not enter any spam link in the comment box.

Trending

৬ কালেমা বাংলা উচ্চারণ ও বাংলা অর্থ সহ | 6 Kalima in Bangla ortho o Uccharan Shoho

৬ কালেমা বাংলা উচ্চারণ  6 Kalima কালিমা সমূহ  ৬ কলিমা আরবী ও বাংলা উচ্চারণ ও অর্থ সহ এবং ঈমান-ই মুজমাল  ঈমান-ই মুজমাল সহ চলুন জেনে নেই  ৬ কালেমা বাংলা উচ্চারণ সহ ইসলামিক সব গরুত্ব পর্ণ দুআ ও আমল সমূহ, এবং নবীদের জীবনী, ইসলামিক যুদ্ধের কাহিনী, জানতে আমাদের আপ্প  ডাউনলোড করুন Download App Now কালেমা কয়টি ও কি কি  কালিমা ৬ টি   (1) কালেমা-ই তাইয়্যেবা   (2). কালেমা-ই শাহাদৎ  (3)  কালেমা-ই তাওহীদ  (4.) কালেমা-ই রদ্দেকুফর  (5). কালিমা-ই তামজীদ  (6.) কালিমা আস্তাগফার ৬ কালেমা বাংলা উচ্চারণ 6 kalima in bangla 1. কালেমা-ই তাইয়্যেবা   بِسْمِ ٱللَّهِ ٱلرَّحْمَٰنِ ٱلرَّحِيمِ  لَا اِلَهَ اِلاَّ اللهُ مُحَمَّدُ رَّسُوْ لُ الله  বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম।  কালিমা তায়্যিবা বাংলা উচ্চারণ  Kalima Tayyiba Bangla লা-ইলাহা ইল্লাল্লাহু মুহাম্মাদুর রাসূলুল্লাহ । কালিমা তায়্যিবা অর্থ  আল্লাহ ব্যাতিত/ ছাড়া কোন মাবুদ (এলাহ) নেই। হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) আল্লাহর প্রেরিত রাসূল।  2. কালেমা-ই শাহাদৎ কালেমা শাহাদাত আরবি  بِسْمِ ٱللَّهِ ٱلرَّحْمَٰنِ ٱلرَّحِيمِ   اَشْهَدُ اَنْ لَّا اِلَهَ اِلَّا اللهُ وَحْدَهُ لَ

Ayatul Kursi Bangla Anubad shoho, | আয়াতুল কুরসি বাংলা অনুবাদ সহ

Ayatul Kursi Bangla  আয়াতুল কুরসি বাংলা আয়াতুল কুরসী বাংলায় অনুবাদ সহ আরবিতে পিকচার ও টেক্সট সহ দেয়া হলো আয়াতুল কুরসী এমন এক আয়াত যার গোনাগন বলেশেষ করার মতো নয় তবে কিস ফজিলত ও গোনাগন উল্লেখ করা হলো জানার জন্য নিচে সম্পূর্ণ দেখোন Ayatul Kursi Bangla Ayatul kursi bangla onubad shoho picture o text shoho deya holo Ayatul kursi amon ak ayat jar gonagon boleshesh korar moto noy tobe kiso fojilot o gonagon ollekh kora holo janar jonno niche shompurno dekhon Ayatul kursi bangla meaning Ayatul Kursi Bangla Anubad shoho, আয়াতুল কুরসি বাংলা অনুবাদ সোহো আয়াতুল কুরসী  আয়াতুল কুরসী (আরবি: آية الكرسي ‎) হচ্ছে পবিত্র কোরআন শরীফের দ্বিতীয় সুরা আল বাকারার ২৫৫তম আয়াতটি। এটি কোরআন শরীফের সবচেয়ে প্রসিদ্ধ আয়াত এবং ইসলামিক বিশ্বের এটি ব্যাপকভাবে মুখস্ত করা হয়। এতে সমগ্র মহাবিশ্বের উপর আল্লাহর জোরালো ক্ষমতার কথা বর্ণনা করে। নবী মুহাম্মদ (সা•) বলেছেন, যে ব্যক্তি প্রত্যেহ পাঁচ ওযাক্ত নামাজের পর সঙ্গে সঙ্গে আয়তুল কুরসি পাঠ করবেন তার আর জান্নাতের মাঝে ব্যবধান থাকল মৃত্যু। অর্থাৎ মৃত্যু হলেই

মহানবীর জন্ম ও মৃত্যু তারিখ, মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) - এর জন্ম ও বংশ পরিচয়

মহানবীর হযরত মুহাম্মদ সাঃ এর জন্ম ও মৃত্যু তারিখ, মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ)  এর জন্ম ও বংশ পরিচয়  সম্বন্ধে বিস্তারিত ভাবে জানুন,  মুহাম্মাদ (সাঃ) ওনার উপর শান্তি বর্ষিত হোক মহানবীর জন্ম ও মৃত্যু তারিখ, মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) - এর জন্ম ও বংশ পরিচয় মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) - এর জন্ম ও বংশ পরিচয় ★★★ নবী জীবনকে আমরা প্রধান দু’টি ভাগে ভাগ করে নেব- মাক্কী জীবন ও মাদানী জীবন। মক্কায় তাঁর জন্ম, বৃদ্ধি ও নবুআত লাভ এবং মদীনায় তাঁর হিজরত, ইসলামের বাস্তবায়ন ও ওফাত লাভ। অতঃপর প্রথমেই তাঁর বংশ পরিচয় ও জন্ম বৃত্তান্ত। রাসূলের মাক্কী জীবন: হযরত মুহাম্মদ সাঃ এর বংশ পরিচয়: ইবরাহীম (আঃ)-এর দুই পুত্র ছিলেন ইসমাঈল ও ইসহাক্ব। ইসমাঈলের মা ছিলেন বিবি হাজেরা এবং ইসহাকের মা ছিলেন বিবি সারা। ইবরাহীম (আঃ)-এর কনিষ্ঠ পুত্র ইসহাক (আঃ)-এর বংশধর অর্থাৎ বনু ইস্রাঈল। যাদের সর্বশেষ নবী ছিলেন হযরত ঈসা (আঃ)। অন্যদিকে হযরত ইবরাহীম (আঃ)-এর জ্যেষ্ঠ পুত্র ইসমাঈল (আঃ)-এর বংশে একজন মাত্র নবীর জন্ম হয় এবং তিনিই হলেন সর্বশেষ ও সর্বশ্রেষ্ঠ নবী হযরত মুহাম্মাদ (ছাল্লাল্লাহু আলাইহে ওয়া সাল্লাম)। ফলে আদম

Wikipedia

Search results